টিভি ব্রেকিংঃ
ঝিনুক টিভির পক্ষথেকে সকল দর্শকদের জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা। ঝিনুক টিভি আসছে নতুন নতুন সব আয়োজন নিয়ে। পাশেই থাকুন
‘ট্রল’ এর অভাবনীয় সাড়া, অপূর্ব’র বাজিমাত

‘ট্রল’ এর অভাবনীয় সাড়া, অপূর্ব’র বাজিমাত

দেশীয় ওটিটি প্লাটফর্ম ‘সিনেমাটিক’ অ্যাপে বৃহস্পতিবার মুক্তি পেয়েছে বহুল প্রতীক্ষিত ওয়েব ফিল্ম ‘ট্রল’। মুক্তির পরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন গ্রুপে প্রশংসিত হচ্ছে সিনেমাটি। স্বরুপ চন্দ্র দে’র রচনায় সাইবার বুলিংয়ের ঘটনা নিয়ে নির্মিত এই সিনেমাটি বানিয়েছেন আলোচিত নির্মাতা সঞ্জয় সমদ্দার।

ছোট পর্দার সুপারস্টার জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, যাকে সবাই ‘রোমান্টিক’ অভিনেতা হিসেবে চেনেন। এবার সেই চিরচেনা রূপ বদলে এই সিনেমাতে নতুন অবয়বে হাজির হয়েছেন এই নায়ক। দেখা দিয়েছেন একদম নৃশংসরূপে। তার এমন পরিবর্তনে রীতিমত চমকেই গিয়েছেন দর্শকরা। সাইলেন্ট কিলারের চরিত্রে ইতিমধ্যেই প্রশংসার জোয়ারে ভাসছেন অপূর্ব। শুধু তাই নয়, নির্মাণশৈলী নিয়েও নানারকম প্রশংসামূলক মন্তব্য করছেন দর্শকরা।

নির্মাতা সঞ্জয় সমদ্দার বলেন, ‘এখন পর্যন্ত দর্শক সাড়ায় আমি অনেক বেশি আনন্দিত। দর্শকদের কাছে যখন কাজটা ভালো লাগে, তখনই নিজেকে স্বার্থক মনে হয়।

সাইলেন্ট কিলারের গল্প নিয়েই ট্রল। যেখানে একসঙ্গে অনেকগুলো গল্প দেখতে পাবেন দর্শকরা। তবে এই গল্প বোধের কিংবা প্রতিশোধ এর যাই হোক না কেনো এতে আরও একটু মানবিক, আরও একটু সমানুভুতিশীল হওয়ার আহ্বান রয়েছে।’

ট্রল প্রসঙ্গে জিয়াউল ফারুক অপূর্ব বলেন, ‘ ‘রোমান্টিক’ অপূর্বকে নতুন করে দর্শকদের চিনিয়েছেন সঞ্জয় সমদ্দার। মুক্তির পর থেকেই এখন পর্যন্ত ফোন, মেসেজে যেসব শুভেচ্ছা পাচ্ছি তার ক্রেডিট অবশ্যই সঞ্জয়ের। আমি শুধু চেষ্টা করে গিয়েছি ভালো কিছু একটা করতে। টিমের সবাই খুবই ভালো করেছেন। দর্শক প্রতিক্রিয়ার অপেক্ষায় ছিলাম। এখন মনে হচ্ছে যে, আসলেই হয়তো কিছু একটা করতে পেরেছি। দর্শকদেরকে ভালোবাসা জানাই যারা কাজটি দেখেছেন। তবে একটু খারাপ লাগছে এটা ভেবে যে, আমার ছোট বোনের চরিত্রে অভিনয় করা লরেন মেন্ডেসকে হারিয়ে। এই কাজটা দেখলে হয়তো সে কখনোই হয়তো সুইসাইডের মতো ভুল সিদ্ধান্ত নিতো না।’

‘ট্রল’ সিনেমাতে অপূর্ব ছাড়াও আরও অভিনয় করেছেন তাসনিয়া ফারিণ, শতাব্দী ওয়াদুদ, রাশেদ মামুন অপু, সদ্য প্রয়াত অভিনেত্রী লরেন মেন্ডেস, পড়শি প্রমুখ।

এদিকে, গত তিনবছর ধরে একটু একটু করে এগিয়েছে দেশের আইটি প্রতিষ্ঠান লাইভ টেকনোলজিসের ওটিটি প্লাটফর্ম ‘সিনেমাটিক’। দৌড়টা এতোদিন ম্যারাথন গতির হলেও এখন থেকে ভালো মানের কন্টেন্ট এর প্রতিনিধি হয়ে বাংলাভাষাভাষি দর্শকদের মনে স্থান করে নিতে চায় প্রতিষ্ঠানটি। এমনটাই জানালেন প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক তামজিদ অতুল।

তিনি বলেন, মানহীন কোন কাজ নয়, আমরাই জেনুইন ও ভালো কনটেন্ট দিয়ে ইউজারদের ‘সিনেমাটিক’চিনিয়েছি। আগামীতে এটাই অব্যাহত থাকবে। এর আগে এই প্লাটফর্মে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘জানোয়ার’ তুমুল প্রশংসিত হয়। সে প্রশংসার রেশ কাটতে না কাটতেই মুক্তি দিলাম ‘ট্রল’। এটিও মুক্তির পর বেশ ভালো সাড়া পাচ্ছে।

শেয়ার করুনঃ

Comments are closed.

© All rights reserved © 2020 | jhenuktv.com
Developed BY POS Digital