টিভি ব্রেকিংঃ
ঝিনুক টিভির পক্ষথেকে সকল দর্শকদের জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা। ঝিনুক টিভি আসছে নতুন নতুন সব আয়োজন নিয়ে। পাশেই থাকুন
বার্সেলোনা-অ্যাতলেটিকো ম্যাচ গোলশূন্য ড্র

বার্সেলোনা-অ্যাতলেটিকো ম্যাচ গোলশূন্য ড্র

জমজমাট লড়াই হলেও শেষ পর্যন্ত বার্সেলোনা ও অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের মধ্যকার ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়।

শনিবার ক্যাম্প ন্যু’তে স্থানীয় সময় দুপুরে শুরু হয় ম্যাচটি। তবে ড্রতে শিরোপা ভাগ্য নড়বড়ে হয়ে গেল অ্যাতলেটিকোর। তবে শীর্ষস্থান এখনও ধরে রেখেছে দিয়েগো সিমিওনের শিষ্যরা। কিন্তু ঘরের মাঠে পয়েন্ট হারানোয় শিরোপা লড়াইয়ে জোর ধাক্কা খেল রোনাল্ড কোম্যানের বার্সা। মৌসুমের শুরুতে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদে যোগ দেওয়ার পর এই ম্যাচ দিয়েই প্রথমবারের মতো বন্ধু লিওনেল মেসির মুখোমুখি হন লুইস সুয়ারেস।

এদিন ম্যাচের প্রথম সুযোগটি আসে উনবিংশ মিনিটে। মারিও এরমোসোর ক্রস ডি-বক্সে খুঁজে পায় আনহেল কোররেয়াকে; তবে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের শট দারুণ স্লাইডিং চ্যালেঞ্জে কর্নারের বিনিময়ে বিপদমুক্ত করেন ক্লেমোঁ লংলে।

৪১তম মিনিটে মেসির জাদুকরী ফুটবলে প্রথম সুযোগ পায় বার্সেলোনা। ডান দিক থেকে একজনকে কাটিয়ে চোখের পলকে সামনে আরও দুজনের ফাঁক দিয়ে বামে ঢুকে জায়গা বানিয়ে ট্রেডমার্ক শট নেন আর্জেন্টাইন তারকা। অসাধারণ নৈপুণ্যে ঝাঁপিয়ে কোনোমতে আঙুল ছুঁয়ে জাল অক্ষত রাখেন ইয়ান ওবলাক। চার মিনিট পর আরেকটি নিশ্চিত সুযোগ উড়িয়ে মেরে হতাশ করেন অ্যাতলেটিকোর ফেলিপে।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই দূর থেকে ভীতি ছড়ান সুয়ারেস। যদিও তার জোরালো হাফ ভলি পোস্টের বেশ বাইরে দিয়ে যায়। পরের ১৫ মিনিটে ধীরে ধীরে চাপ বাড়াতে থাকে বার্সেলোনা।

আক্রমণের ধার বাড়াতে সের্জিনো দেস্তকে বসিয়ে উসমান দেম্বেলেকে নামায় বার্সেলোনা। ৮৫তম মিনিটে তার হাত হাত ধরেই এগিয়ে যেতে পারতো তারা। তবে অরক্ষিত এই ফরোয়ার্ডের হেড ক্রসবারের ওপর দিয়ে উড়ে যায়।

শেষ সময়ে শেষ একটা চেষ্টা করেন মেসি। কিন্তু তার প্রচেষ্টা অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হলে একরাশ হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।

শেয়ার করুনঃ

Comments are closed.

© All rights reserved © 2020 | jhenuktv.com
Developed BY POS Digital