টিভি ব্রেকিংঃ
ঝিনুক টিভির পক্ষথেকে সকল দর্শকদের জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা। ঝিনুক টিভি আসছে নতুন নতুন সব আয়োজন নিয়ে। পাশেই থাকুন
নওগায় এক একর জমির শতাধিক গাছ কেটে ফেলেছে প্রতিপক্ষ

নওগায় এক একর জমির শতাধিক গাছ কেটে ফেলেছে প্রতিপক্ষ

শতাধিক মেহগনী গাছ লাগানোর দুই ঘন্টার মধ্যে প্রতিপক্ষ সেগুলো কেটে ফেলেছে

পৈত্রিকসূত্রে প্রাপ্ত নিজস্ব এক একর সম্পত্তিতে শতাধিক মেহগনী গাছ লাগানোর দুই ঘন্টার মধ্যে প্রতিপক্ষ সেগুলো কেটে ফেলেছে। এর আগেও ঐ প্রতিপক্ষ বোরো মওসুমের সনমুদয় ধান কেটে নিয়ে গেছে। এর ফলে ঐ সম্পত্তির মালিক মারাত্মকভাবে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন। ঘটনাটি জেলার বদলগাছি উপজেলার গাবনা গ্রামে সংঘটিত হয়েছে।

সরেজমিন গিয়ে গ্রামবাসীদের নিকট থেকে জানা গেছে, গাবনা গ্রামের গুনাগাড়ী মৌজায় খতিয়ন নং ৩৩ এবং দাগ নং ১২৯ মোতাবেক এক একর সম্পত্তি মৃত শামসুদ্দিন দেওয়ানের পুত্র মোঃ আব্দুল কুদ্দুস ভোগ দখল করে আসছেন। তাঁর পিতা শামসুদ্দিন দেওয়ান মৃত্যুর পূর্বে দলিল নম্বর ২৭৪০ এবং রশিদ নম্বর ২৭৫৯ তারিখ ২৩-০৭-২০২৯ মোতাবেক তাকে রেজিষ্ট্রি করে দেন। সেই থেকে তিনি উক্ত সম্পত্তি ভোগ দখল করে আসছেন। কিন্ত হঠাৎ করে কুদ্দুসের ফুফাতো ভাই একই গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর পুত্র মোঃ আবু মাসুদ ঋষি সম্পত্তি নিয়ে তার সাথে বিরোধে লিপ্ত হয়।

উক্ত আব্দুল কুদ্দুস সন্তানদের লেখাাপড়ার জন্য নওগাঁ শহরে বাসাভাড়া করে বসবাস করে আসছেন। সেই সুযোগে তাঁর লাগানো চলতি বোরো মওসুমের ঐ এক একর জমির সমুদয় ধান উক্ত আবু মাসুদ ঋষি কেটে নিজের বাড়িতে নিয়ে যায়। এ ব্যপারে বদলগাছি থানায় মামলা দায়ের করেন আব্দুল কুদ্দুস। মামলা নম্বর ১০/২১ জি আর। এ ব্যপরে পুলিশ তদন্তসাপেক্ষে উক্ত ঋষির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে। কিন্তু বাদী আব্দুল কুদ্দুস দাবী করেছেন চার্জশীট হওয়া সত্বেও আসামী প্রকাম্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে । পুলিশ কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেনা।

এরই মধ্যে গত ৩০ মে রবিবার বেলা ১১টায় সম্পত্তির মালিক আব্দুল কুদ্দুস বিবদমান ঐ এক একর সম্পত্তিতে শতাধিক মেহগনী গছের চারা রোপন করে নওগাঁ চলে আসেন। এর মত্র দুই ঘন্টার মধ্যে তার ফুফাতো ঋষি লোকজন নিয়ে রোপিত সবগুলো গাছ কেটে ফেলে। কর্তিত গাছগুলো জমিতেই স্তুপাকারে রাখা হয়েছে। এ ব্যপারে আব্দুল পুনরায় বদলগাছি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

পুলিশ ঘটনাস্খল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা বদলগাছি থানার এস আই আবু তাহের ধান কাটা এবং গাছ কেটে ফেলার কথার সত্যতা স্বীকার করে বলেছেন, ‘‘উক্ত ঘটনার তদন্ত চলছে।’’

শেয়ার করুনঃ

Comments are closed.

© All rights reserved © 2020 | jhenuktv.com
Developed BY POS Digital