টিভি ব্রেকিংঃ
ঝিনুক টিভির পক্ষথেকে সকল দর্শকদের জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা। ঝিনুক টিভি আসছে নতুন নতুন সব আয়োজন নিয়ে। পাশেই থাকুন
হোটেল-রেস্তোরাঁর ভ্যাট ৫ শতাংশ করার দাবি মালিক সমিতির

হোটেল-রেস্তোরাঁর ভ্যাট ৫ শতাংশ করার দাবি মালিক সমিতির

মহামারি করোনাভাইরাসের আঘাতে যেসব সেক্টর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তার মধ্যে হোটেল-রেস্তোরাঁ বেশি হয়েছে। এসব বিবেচনায় আসন্ন বাজেটে ভ্যাট ও কমিশন কমানোর বেশ কিছু সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা দেওয়া হয়। ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটে সব হোটেল-রেস্তোরাঁর ভ্যাট ৫ শতাংশ করার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ রেস্তোরাঁ মালিক সমিতির নেতারা।

শনিবার সংগঠনের কার্যালয়ে আয়োজিত আসছে অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে সরকারের কাছে এসব দাবি তুলে ধরেন সংগঠনের মহাসচিব ইমরান হাসান। তিনি বলেন, চার ও পাঁচ তারকা হোটেল-রেস্তোরাঁর ভ্যাটের হার ১৫ শতাংশ, বিদেশি ফুড বিক্রির জন্য ৭ দশমিক ৫ শতাংশ, কর্মজীবী, শ্রমজীবী, দিনমজুরদের জন্য বাংলা ও স্ট্রিট ফুডের ভ্যাট ৩ থেকে ৫ শতাংশ, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ক্যান্টিনের ভ্যাট ২ শতাংশ করার দাবি জানাচ্ছি। এ খাত থেকে ভ্যাট আদায় শতভাগ নিশ্চিত করার জন্য সব প্রকার হোটেল-রেস্তোরাঁয় ইএফডি মেশিন স্থাপন করা হোক। যদিও এখনো অনেক হোটেল-রেস্তোরাঁয় ইএফডি মেশিন স্থাপন করা হয়নি। যেসব হোটেল-রেস্তোরাঁয় ইএফডি মেশিন স্থাপন করা হয়েছে সেসব হোটেলেই মামলা হচ্ছে। একই সঙ্গে তৃতীয়পক্ষের মাধ্যমে ভ্যাট আদায়ের নামে হয়রানি বন্ধ করতে হবে। ভ্যাট আদায়ে সব প্রকার জরিমানা ও অন্যান্য সার-চার্জ বাতিলের দাবি করেন।

ইমরান হাসান বলেন, রেস্তোরাঁর স্থান/স্থাপনার ভাড়ার ভ্যাট ৩ শতাংশ করা উচিত। হোটেল-রেস্তোরাঁ চলমান রাখতে মালিকদের চলতি মূলধন হিসেবে সর্বোচ্চ ৪ শতাংশ সুদে ১০ লাখ থেকে ১ কোটি টাকা পর্যন্ত এসএমই ঋণ দিতে সরকারের কাছে অনুরোধ করেন তিনি। পচনশীল পণ্য বিক্রেতাদের ঋণ দিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের এ বিষয়ে নীতিমালা বা সার্কুলার জারি করা প্রয়োজন।

এছাড়া হোটেল-রেস্তোরাঁ খাতকে পর্যটন শিল্পের প্রধান নিয়ামক শক্তি হিসেবে শিল্পের মর্যাদা দিতে হবে। কারণ ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প কারখানা পরিচালনা করতে যেসব নিয়ম-নীতি বাস্তবায়ন করতে হয় তার চেয়ে বেশি নিয়মের মধ্যে চলে হোটেল-রেস্তোরাঁ। তিনি আরও বলেন, বর্তমানে হোটেল-রেস্তোরাঁ পরিচালনার জন্য সরকারের ১৩টি সংস্থার অনুমোদন ও সেবা নিতে হয়। এসব সেবাকে একটি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে দেওয়ার জন্য ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টার চালু করা দরকার।

এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন- সংগঠনের সভাপতি ওসমান গণি, নবাবী ভোজ রেস্টুরেন্টের মালিক লাবনী চৌধরী প্রমুখ।

শেয়ার করুনঃ

Comments are closed.

© All rights reserved © 2020 | jhenuktv.com
Developed BY POS Digital